ই-পেপার বাংলা কনভার্টার শনিবার ২২ জুন ২০২৪ ৭ আষাঢ় ১৪৩১
ই-পেপার শনিবার ২২ জুন ২০২৪
ব্রেকিং নিউজ:




ভি২৯ই : স্মার্টফোনেই হবে বিয়ের প্রোফেশনাল পোট্রেইট ফটোগ্রাফি
স্টাফ রিপোর্টার
Published : Thursday, 9 November, 2023 at 7:32 PM
কড়া নাড়ছে শীত। শুরু হয়ে যাবে বিয়ের উৎসব। হলুদ থেকে বৌভাত- বিয়ের হরেক আয়োজনে মেতে উঠবে আত্মীয়, স্বজন, বন্ধুবান্ধবেরা। প্রিয় ওই সময়টাকে ধরে না রাখলে চলে! কেমন হয় বিয়ের ছবিগুলো যদি হাতে থাকা স্মার্টফোনেই প্রোফেশনাল ভাবে তোলা যায়? গ্লোবাল স্মার্টফোন নির্মাতা প্রতিষ্ঠান ভিভোর প্রোফেশনাল পোর্ট্রেট এক্সপার্ট ভি২৯ই তুলে আনতে পারে এই সব অনুষ্ঠানের নান্দনিতাকে।  

নতুন আলোয় শুরু হোক নতুন যাত্রা:
ভিভো ভি২৯ই এর ১৫.৬ মিলিমিটারের স্মার্ট অরা লাইটের থ্রি-ডি লাইটিং ইফেক্ট দূর করবে আলোকস্বল্পতা। বর কনের আংটি বদলের মুহূর্তে ক্যাপচার করা ছবিটা আরো স্পেশাল হবে ওয়ার্ম টোনে অরা লাইটকে সেট করে নিলে। কারণ এবারে অরা লাইট কালার টেম্পারেচার ক্যালভিনে পরিমাপ করে দিতে পারে পর্যাপ্ত আলো। পাশাপাশি  কুল থেকে ওয়ার্ম টোনে আলো ঠিক করা যায় ম্যানুয়্যালি। আর যদি ভরা পূর্ণিমা থাকে তবে বরকনে আর আকাশের চাঁদের যুগলবন্দীতে বেশ কয়েকটা কাপল ছবি তো তোলাই যায়। এর জন্য ভিভো ভি২৯ই এর সুপারমুন মোড তো আছেই।
হলুদের উজ্জ্বল ব্যাকগ্রাউন্ডেও দারুণ ফোকাস:

হলুদ সন্ধ্যায় সবাই ম্যাচিং হলুদ শাড়ি কিংবা পাঞ্জাবি পড়ার আনন্দ অন্যরকম। এতো উজ্জ্বল রঙের মধ্যেও নিজেকে স্পটলাইটে নিয়ে আসতে সাহায্য করবে ভিভো ভি২৯ই এর ৬৪ মেগাপিক্সেল ওআইএস রিয়ার আল্ট্রা সেন্সিং ক্যামেরায় থাকা অটো ফোকাস লেন্স। এমনকি হলুদ মুখে বন্ধু কিংবা আত্মীয় স্বজনের সাথে সেলফিগুলোকে আরো স্মৃতিমধুর করবে স্মার্টফোনটির ৫০ মেগাপিক্সেল এএফ সেলফি ক্যামেরা। পোর্ট্রেট সেলফি তোলার সময় কোনো বন্ধু হুট করে এলে, তাকেও অটো ফোকাস করে দেবে দারুণ সেলফি। অপটিক্যাল ইমেজ স্ট্যাবলাইজার থাকায় হলুদের মাখানোর খেলায় মেতে ওঠা আত্মীয়দের ছবি ঝাপসা না হয়ে হবে জীবন্ত। উজ্জ্বল ব্যাকগ্রাউন্ড হলেও গ্রুপ ছবির ক্ষেত্রেও ৮ মেগাপিক্সেল ওয়াইড এঙ্গেল ক্যামেরা সবার মুখে আনন্দের অভিব্যক্তি মলিন হবে না কোনো ছবিতে।

বিয়ে বাড়ি জমে উঠবে হাল ফ্যাশনের সাথে:                                  
মাত্র ১৯০ গ্রাম ওজনের প্রোফেশনাল পোর্ট্রেট এক্সপার্ট ভিভো ভি২৯ই সাথে থাকবে তখন কি দরকার ভারি ক্যামেরার? ভিভোর ভি২৯ইতে রয়েছে স্মার্ট অরা লাইটের জাদু। প্রতিটি মুহূর্তকে স্পটলাইটে এনে এই স্মার্ট অরা লাইট দেবে চমৎকার ছবি। এমনকি বিয়ের নানা কাজে ভীষণ ব্যস্ত বাবা মায়ের চোখ মুখে আনন্দের অভিব্যক্তিকে তুলে ধরবে ভিভো ভি২৯ই। অরা লাইটের ম্যানুয়্যাল সেটিং থাকায় লাইটিং কন্ডিশন নিয়ে চিন্তার কিছু নেই। ভিভোর চমৎকার এই প্রযুক্তি হবে আপনার নিজস্ব লাইটিং ডিজাইনার। তাই যখন যেমন প্রয়োজন, সেই অনুযায়ী আলো ঠিক করে নিশ্চিন্তে তোলা যাবে মানসম্মত সব ছবি।


স্মৃতি থাকুক যত্নে: 
ভাবছেন এতো ছবি ভিডিও স্মৃতি হিসেবে সংগ্রহ করা যাবে তো? এতে থাকা ৮ জিবি র‌্যাম এবং ২৫৬ জিবি রমের স্টোরেজ এই দুশ্চিন্তার অবসান ঘটাবে। সাথে থাকছে কোয়ালকম স্ন্যাপড্রাগন ৬৯৫ প্রসেসর যা মূলত টিএসএমসি প্রসেস, অক্টা কোর সিপিইউ। পাশাপাশি স্মার্টফোনটি চলবে আপডেটেড ফানটাচ ওএস ১৩ অপারেটিং সিস্টেমে। 

রোজ গোল্ড এবং ফরেস্ট ব্ল্যাক রঙে মিলবে ভিভো ভি২৯ই। ডিসপ্লের ডান ও বাম পাশের স্ক্রিন ব্যাজেল থাকছে মাত্র ১.৭৫ মিলিমিটার। ফলে আল্ট্রা ন্যারো স্ক্রিন ব্যাজেলে বিয়ে স্মৃতিগুলো পরিবারের সবার সাথে বসে দেখার দারুণ অভিজ্ঞতা পাওয়া যাবে। এছাড়া ৬.৬৭ ইঞ্চির ডিসপ্লেতে পাওয়া যাবে ১২০ হার্জ  রিফ্রেশ রেট, যা একের পর এক ভিডিও দেখা যাবে কোনো বিরতি ছাড়াই। তাছাড়া ৩৯৪ আল্ট্রা হাই পিক্সেল ডেনসিটি থাকায় প্রতিটি ছবি হবে জীবন্ত। দীর্ঘক্ষণ স্মার্টফোনে স্মৃতিরোমন্থনে বাঁধা হবে না চোখের সুরক্ষার দুশ্চিন্তা। ভিভো ভি২৯ই স্মার্টফোনে রয়েছে এসজিএস আই কেয়ার ডিসপ্লে সার্টিফিকেশন। ৪,৮০০ মিলিঅ্যাম্পিয়ার ব্যাটারি দ্রুত চার্জ করার জন্য রয়েছে ৪৪ ওয়াটের টাইপ সি চার্জার। ফলে কম সময়েই হবে দ্রুত চার্জ। সাথে স্মার্ট কুলিং সিস্টেম রাফ এবং টাফ ব্যবহারেও ঠান্ডা রাখবে স্মার্টফোন। 

ভিভোর সব অথোরাইজড শো রুমের পাশাপাশি ই-স্টোরে চলছে ভিভো ভি২৯ই এর হট সেল। ৩৬ হাজার ৯৯৯ টাকায় পাওয়া যাবে দারুণ স্মার্টফোনটি।

ভিভো প্রসঙ্গে
ভিভো একটি প্রযুক্তিভিত্তিক প্রতিষ্ঠান যা মানুষের চাহিদাকে প্রাধান্য দিয়ে স্মার্ট ডিভাইস ও ইন্টেলিজেন্ট সার্ভিসের মাধ্যমে পণ্য উৎপাদন করে। মানুষ আর ডিজিটাল ওইয়ার্ল্ডের মধ্যে সেতুবন্ধন তৈরি করাই প্রতিষ্ঠানটির উদ্দেশ্য। অনন্য সৃজনশীলতার মাধ্যমে ভিভো ব্যবহারকারীদের হাতে যথোপযুক্ত স্মার্টফোন ও ডিজিটাল আনুষাঙ্গিক তুলে দিচ্ছে। প্রতিষ্ঠানের মূল্যবোধকে অনুসরণ করে ভিভো টেকসই উন্নয়ন কৌশল বাস্তবায়ন করেছে; সমৃদ্ধ ও দীর্ঘস্থায়ী বিশ্বমানের প্রতিষ্ঠান হওয়াই যার ভিশন। 

স্থানীয় মেধাবী কর্মীদের নিয়োগ ও উন্নয়নের মাধ্যমে শেনজেন, ডনগান, নানজিং, বেজিং, হংঝু, সাংহাই, জিয়ান, তাইপে, টোকিও এবং সান ডিয়াগো এই ১০টি গবেষণা ও উন্নয়ন কেন্দ্রে (আরএন্ডডি) কাজ করছে ভিভো। যা স্টেট-অফ-দ্য-আর্ট কনজ্যুমার টেকনোলজির উন্নয়ন, ফাইভজি, আর্টিফিসিয়াল ইন্টেলিজেন্স, ইন্ডাস্ট্রিয়াল ডিজাইন, ফটোগ্রাফি এবং আসন্ন প্রযুক্তির ওপর কাজ করে যাচ্ছে। চীন, দক্ষিণ ও দক্ষিণপূর্ব এশিয়ায় ভিভোর পাঁচটি প্রোডাকশন হাব আছে (ব্র্যান্ড অথোরাইজড ম্যানুফ্যাকচারিং সেন্টারসহ) যেখানে বছরে প্রায় ২০০ মিলিয়ন স্মার্টফোন বানানোর সামর্থ্য আছে। এখন পর্যন্ত ৬০টিরও বেশি দেশে বিক্রয়ের নেটওয়ার্ক আছে ভিভোর এবং বিশ্বজুড়ে ৪০০ মিলিয়নের বেশি ভিভো স্মার্টফোন ব্যবহারকারী রয়েছে।







সম্পাদক ও প্রকাশক : কে.এম. বেলায়েত হোসেন
৪-ডি, মেহেরবা প্লাজা, ৩৩ তোপখানা রোড, ঢাকা-১০০০ থেকে প্রকাশিত এবং মনিরামপুর প্রিন্টিং প্রেস ৭৬/এ নয়াপল্টন, ঢাকা থেকে মুদ্রিত।
পিএবিএক্স: ৪১০৫২২৪৫, ৪১০৫২২৪৬, ০১৭৭৫-৩৭১১৬৭, বিজ্ঞাপন ও সার্কুলেশন: ৪১০৫২২৫৮
ই-মেইল : [email protected], [email protected], [email protected]
© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত
পিএবিএক্স: ৪১০৫২২৪৫, ৪১০৫২২৪৬, ০১৭৭৫-৩৭১১৬৭, বিজ্ঞাপন ও সার্কুলেশন: ৪১০৫২২৫৮
ই-মেইল : [email protected], [email protected], [email protected]