ই-পেপার বাংলা কনভার্টার শনিবার ২২ জুন ২০২৪ ৭ আষাঢ় ১৪৩১
ই-পেপার শনিবার ২২ জুন ২০২৪
ব্রেকিং নিউজ:




কিছুটা কমেছে সবজির দাম, মাছ-মাংসের বাজার চড়া
স্টাফ রিপোর্টার
Published : Friday, 10 November, 2023 at 2:18 PM, Update: 10.11.2023 2:26:38 PM
কয়েকদিনের ব্যবধানে শীত মৌসুম উঁকি দেয়ায় নানা রকম শীতকালীন সবজিতে ভরে গেছে রাজধানীর বাজারগুলো এতে কিছুটা স্বস্তি ফিরছে সবজির বাজারগুলোতে। গত কয়েক সপ্তাহের তুলনায় প্রায় অর্ধেক কমেছে ডিম, আলুসহ কিছু পণ্যের দাম। তবে বাড়তি দামেই বিক্রি হচ্ছে মাছ-মাংস।

শুক্রবার (১০ নভেম্বর) সাপ্তাহিক ছুটির দিনে রাজধানীর বিভিন্ন বাজার ঘুরে দরদামের এমন চিত্র দেখা গেছে।

দামের এ নিম্নমুখী প্রবণতায় খুব বেশি খুশি নন সাধারণ ক্রেতারা। দাম সামান্য কমলেও তা নাগালের বাইরে। এদিকে চাল, ডাল চিনিসহ নিত্যপণ্যের দাম বেড়েই চলছে। ফলে স্বস্তি নেই বাজারে।

এদিকে রাজধানীর বিভিন্ন বাজারের খুচরা ব্যবসায়ীরা বলছেন, মৌসুম শেষে বাজারে আলুর সরবরাহ কম। ভারত থেকে আলু আমদানি হচ্ছে। তবে যে পরিমাণে আলু এসেছে, তা চাহিদার তুলনায় খুব সীমিত। দাম কিছুটা কমলেও নাগালের মধ্যে আসেনি। ফলে বাজারে তেমন প্রভাব পড়ছে না। আর ডিম আমদানি কারণে দাম কিছুটা কমছে। তবে তা চাহিদার তুলনায় খুবই কম।

তারা আরও বলছেন, বর্তমানে রাজধানীর বাজারে আলু বিক্রি হচ্ছে ৪৫ থেকে ৫০ টাকায়। যা গত এক সপ্তাহের তুলনায় কেজিপ্রতি কমেছে ১০ টাকা। তবে অন্যসময় বছরজুড়ে আলুর দাম থাকে ২৫ থেকে ৩০ টাকার মধ্যে। অর্থাৎ আলুর দাম কেজিতে ১০ টাকা কমলেও তা এখনও স্বাভাবিক দামের চেয়ে দ্বিগুণ।

রাজধানীর কাঁচা বাজারগুলোতে লম্বা বেগুন প্রতিকেজি বিক্রি হচ্ছে ৪০-৫০ টাকা, গোল বেগুন ৫০-৬০ টাকা, পেঁপে ৩০-৩৫ টাকা, করলা ৫০-৬০ টাকা, চিচিঙ্গা বিক্রি হচ্ছে ৫০-৬০ টাকা, ঢেঁড়শ ৪০-৫০ টাকা মান ও সাইজভেদে লাউ ৪০-৬০ টাকা, জালি ৪০-৫০ টাকা, ধুন্দল ৫০-৬০ টাকা, কচুর লতি ৬০-৭০ টাকায় বিক্রি হতে দেখা গেছে। অধিকাংশ সবজি দুই তিন সপ্তাহ আগে ৩০-৪০ টাকা বেশি দামে বিক্রি হয়েছে। গত সপ্তাহেও ১০-২০ টাকা বেশি দামে বিক্রি হতে দেখা গেছে।

এছাড়াও নতুন সবজি হিসেবে ফুলকপি মাঝারি সাইজের ৪০-৫০ টাকা, শিম প্রতি কেজি ৭০-৮০ টাকা। এক সপ্তাহ আগে এসব সবজির দাম ২০-৩০ টাকা বেশি ছিল। কমেছে আলুর দাম। প্রতি কেজি আলু বিক্রি হচ্ছে ৪০-৪৫ টাকা। তবে নতুন আলু বিক্রি হচ্ছে ১২০-১৩০ টাকা।

এদিকে পুঁই শাক ৩০ টাকা, পাট শাক আটি ১০-১৫ টাকা, লাল শাক ১০-১৫ টাকা, পালং শাক ২০-২৫ টাকা, মুলা শাক ১৫-২০ টাকা, সরিষা শাক ১০ টাকা আটি বিক্রি হতে দেখা গেছে। তবে বাজারে দোকানের তুলনায় ফুটপাতের দোকানগুলোতে প্রত্যেক সবজির দাম ৫-১০ টাকা কমে বিক্রি হচ্ছে।

এদিকে কেজিতে ১০-২০ টাকা কমেছে পেঁয়াজের দাম। দেশি পেঁয়াজ বিক্রি হচ্ছে ১২০-১৩০ টাকা, ইন্ডিয়ান পেঁয়াজ ১০০-১১০ টাকায় বিক্রি হচ্ছে। কাঁচা মরিচ প্রতি কেজি ১৫০-১৬০ টাকা।

অপরদিকে প্রায় আগের দামেই বিক্রি হচ্ছে মাছ-মাংস। প্রতি কেজি ব্রয়লার ১৮০-১৯০ টাকা, সোনালি ৩০০-৩২০ টাকা। গরুর মাংস ৭৫০-৮০০ টাকা কেজিতে বিক্রি হচ্ছে।

বাজারে তেলাপিয়া ও পাঙাশ মাছের দাম এখন প্রতি কেজি ২০০ থেকে ২৩০ টাকা। অন্য মাছের মধ্যে মাঝারি ও বড় আকারের চাষের রুই, কাতলা ও মৃগেল মাছের দাম প্রতি কেজি ৩২০ থেকে ৪০০ টাকা। এছাড়াও পাবদা, টেংরা, কই, বোয়াল, চিতল, আইড় ও ইলিশ মাছের দাম সাধারণ নাগালের বাইরেই রয়েছে।







সম্পাদক ও প্রকাশক : কে.এম. বেলায়েত হোসেন
৪-ডি, মেহেরবা প্লাজা, ৩৩ তোপখানা রোড, ঢাকা-১০০০ থেকে প্রকাশিত এবং মনিরামপুর প্রিন্টিং প্রেস ৭৬/এ নয়াপল্টন, ঢাকা থেকে মুদ্রিত।
পিএবিএক্স: ৪১০৫২২৪৫, ৪১০৫২২৪৬, ০১৭৭৫-৩৭১১৬৭, বিজ্ঞাপন ও সার্কুলেশন: ৪১০৫২২৫৮
ই-মেইল : [email protected], [email protected], [email protected]
© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত
পিএবিএক্স: ৪১০৫২২৪৫, ৪১০৫২২৪৬, ০১৭৭৫-৩৭১১৬৭, বিজ্ঞাপন ও সার্কুলেশন: ৪১০৫২২৫৮
ই-মেইল : [email protected], [email protected], [email protected]